Text size A A A
Color C C C C
পাতা

অফিস সম্পর্কিত

*ব্রিটিশ ভারতে ১৯২৪ সালে জনগণকে স্বাস্থ্য ও স্যানিটেশন বিষয়ে সচেতন করার লক্ষ্যে পাবলিক ডিভিশনের অধীনে ডিষ্ট্রিষ্ট পাবলিক রিলেশনস্ অফিস সৃষ্টি করা হয়।

*তৎকালীন তথ্য বিভাগের আওতায় পাবলিসিটি ডিপার্টমেন্ট নামে কলকাতার রাইটার্স বিল্ডিংয়ে এ বিভাগের কার্যক্রম শুরু হয়।

*১৯৪৭ সালে দেশ বিভাগের পর তৎকালীন পাকিস্তান সরকারের তথ্য ও বেতার মমত্রণালয়ের অধীনে ফিল্ড পাবলিসিটি এবং নিউজ ও ফিল্ম শাখা নিয়ে পাবলিক রিলেশনস্ ডাইরেক্টরেট গঠিত হয়।

*১৯৬৮ সালে পাবলিক রিলেশন্স দপ্তরের কর্মপরিধি বাড়িয়ে প্রত্যেক জেলায় একজন ডিষ্ট্রিক্ট পাবলিক রিসেনস্ অফিসার ও প্রত্যেক মহকুমায় একজন সাবডিভিশনাল পাবলিক রিলেশনস্ অফিসারের পদ সৃষ্টি করা হয়।


*স্বাধীনতাত্তোর বাংলাদেশের তৃণমূল পর্যায়ে জনগণকে সচেতন করার মাধ্যমে উন্নয়ন কার্যক্রমে উদ্বুদ্ধ ও সম্পৃক্ত করার বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করে বাংলাদেশ পরিষদ, বিএনআর এবং মহিলা শাখাকে একত্রিত করে ১৯৭২ সালে গণযোগাযোগ অধিদপ্তর গঠন করা হয়।
    
*৬৪টি জেলা তথ্য অফিস এবং ৪টি পার্বত্য উপজেলা তথ্য অফিসের মাধ্যমে দেশের সকল অঞ্চলে গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের কার্যক্রম বাস্তবায় হয়।
    
*প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে জেলা ও উপজেলা তথ্য অফিসগুলো সরকারের গৃহীত নীতিমালা ও উন্নয়ন কর্মসূচির সাথে জনগণকে সম্পৃক্ত করার লক্ষ্যে বিভিন্ন সভা, সেমিনার, আলোচনা সভা, সংগীতানুষ্ঠান ও সিনেমা প্রদর্শন করে আসছে।
    
*এক সময়ে এদেশে গ্রামে-গঞ্জে বায়োস্কোপ একটি খুবই জনপ্রিয় গণমাধ্যম হিসেবে পরিচিত ছিল। এ অধিদপ্তর সে সময় এ বায়োস্কোপ আয়োজন করতো এবং এর মাধ্যমে জনগণকে জন্মনিয়মত্রণ ও স্যানিটেশন বিষয়ে তথ্য প্রদান করতো।
    
*বর্তমানে এ কার্যক্রমের সাথে যোগ হয়েছে- নাটক, কর্মশালা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, প্রেসমিটিং, শিশুমেলা, উঠান বৈঠাক, পথপ্রচার, পুষিতকা বিতরন সহ সরকারের নানামুখী কাজ।

*সাহিত্য, সাংবাদিকতা ও সংগীত জগতের বরেণ্য ব্যক্তিবর্গ যেমন- তফাজ্জল হোসেন মিয়া, কবি জসীম উদ্দীন, শিল্পী আববাস উদ্দীন, আব্দুল আলীম, সোহরাব হোসেন, আব্দুল লতিফ, বেদার উদ্দীন প্রমূখ এ বিভাগে বিভিন্ন সময়ে কাজ করেছেন।


    



    

    

    

    


    

 

ছবি